Home >> জানা-অজানা >> মুগ্ধকর, মুতাকাল্লিমে ইসলাম মাওলানা ইলিয়াস ঘুম্মান (প্রথম পর্ব )

মুগ্ধকর, মুতাকাল্লিমে ইসলাম মাওলানা ইলিয়াস ঘুম্মান (প্রথম পর্ব )

Maulana ilias gumman

১. খোস্ত রণাঙ্গন, আফগানিস্তান। আগ্রাসী রুশ সেনাদের বিরুদ্ধে জিহাদে অংশগ্রহণ করেছেন এক তরুন আলেম। তার বীরত্ব ও সাহসিকতার আলোচনা সবার মুখে মুখে।

২. সিংগাপুর। পাকিস্তান থেকে একটি তাবলিগী জামাত এসেছে। একজন আলেম আছেন তাদের সাথে। তার আলোচনা সাবলিল, মনোমুগ্ধকর। তিনি আল্লাহর কথা বলছেন, হেদায়াতের কথা বলছেন।

৩. আড়াইয়ালা জেল, রাওয়ালপিন্ডি। ৪ নাম্বার চৌকির তিন নাম্বার সেলে বন্দী আছেন একজন আলেম। ছোট সেলে সূর্যের আলো খুব কমই আসে। চারপাশে দেয়াল। তবে বন্দী আলেম এসব নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছেন না। তার মনে আছে মহান পূর্বসূরি ইমাম ইবনে তাইমিয়ার কথা ما يصنع اعداءي بي.. ان جنتي و بستاني في صدري… ان رحت فهي معي لا تفارقني (দুশমন আমার কি করবে?? আমার জান্নাত, আমার বেহেশতী বাগিচা আমার বক্ষে। যেখানেই যাই কিংবা থাকি না কেন, তা আমার সাথেই থাকবে) বন্দী আলেম নিজের কারারুদ্ধ জীবনের কথা ভাবছেন না। তিনি ভাবছেন মুসলিম উম্মাহর কথা। তিনি ভাবছেন সে সকল দরবারী মোল্লাদের কথা যারা প্রতিনিয়ত জিহাদের আয়াতের অপব্যখ্যা করে চলেছে। এই অপব্যখ্যার রোধকল্পে কলম ধরা দরকার অথচ তার কাছে খুব বেশী বইপত্র নেই। যা আছে তাও বাজেয়াপ্ত হতে পারে যে কোনো সময়ে। তবুও বন্দী আলেম কলম ধরলেন। সামনে থাকা কিতাবাদী আর ছাত্রজীবনের মোতালাআ, এ দুটোই তার সম্বল। বন্দী আলেম লিখছেন। বইটির নাম জিহাদ ফী সাবিলিল্লাহ পর এতেরাযাত কা ইলমী জায়েজা।

৪. মারকাযে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত, সারগোধা। ছোট একটি কক্ষ। কক্ষের একপাশে সবুজ পর্দা লাগানো। পর্দার সামনে একজন আলেম বসেছেন। তিনি একটি লেকচার ভিডিও করবেন। জাবেদ গামেদী, মেরাজ রাব্বানী আর তাউসিফুর রাহমানের মতো ভ্রান্তমতালম্বীরা মিডিয়াতে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। এসকল বিভ্রান্তির জবাব দিতে আলেম সাহেবও মিডিয়ায় এসেছেন। ক্যামেরা কিনেছেন। ক্যামেরাগুলো এখন তার সামনে। ভিডিও হচ্ছে। ভিডিও প্রকাশিত হলে দেখা যাবে আফটার ইফেক্টের কল্যানে পেছনের সবুজ পর্দা উধাও। সেখানে লেখা আছে আহনাফ মিডিয়া সার্ভিস।

৫. হংকং। পাকিস্তান থেকে একজন আলেম এসেছেন। তিনি তাযকিয়ায়ে নফসের উপর আলোচনা করছেন। তিনি শায়খ আব্দুল হাফিজ মক্কী এবং শাহ হাকিম মুহাম্মদ আখতার র. থেকে ইজাজত লাভে ধন্য হয়েছেন।

৬. শায়খ জাকারিয়া ইন্সটিটিউট, দক্ষিন আফ্রিকা। হাদিস পড়াচ্ছেন একজন আলেম। তার দরসে ছাত্ররা সবাই মনোযোগী কারন তার পড়ানোর ধাচ অন্যদের চেয়ে আলাদা।ব্যতিক্রম।

৭. খতমে নবুয়ত কনফারেন্স, লাহোর। মঞ্চে দাঁড়িয়ে অগ্নিঝরা ভাষণ দিচ্ছেন এক মাওলানা। দীপ্ত কন্ঠে বলছেন ‘দেওবন্দীয়্যত ডর নে কা নাম নেহি হ্যায়। দেওবন্দীয়্যত বুযদিলি কা নাম নেহি হ্যায়’

৮. বাহ্যত খোস্ত রণাঙ্গনের সাহসী মুজাহিদের সাথে সিংগাপুরে তাবলিগ জামাতের সেই আলেমের কোন মিল খুজে পাওয়া যায় না। হংকংয়ের সেই আধ্যাত্মিক পুরুষের সাথে সারগোধায় ক্যামেরার সামনে বসা আলেমের মিল খোজাটাও বেমানান। যদিও এসব কাজ পরস্পরবিরোধী নয়, তবুও নানা কারনে আজকাল সবার কর্মপরিধি সীমিত হয়ে এসেছে।কিন্তু এ যুগেও এমন কিছু মানুষ আছেন যারা সব ময়দানে কাজ করার বিরল সৌভাগ্য অর্জন করেছেন।

আমরা যার আলোচনা করবো তিনিও এমনই একজন। তিনি মুতাকাল্লিমে ইসলাম মাওলানা ইলিয়াস ঘুম্মান। প্রথম ৭ টি পয়েন্টে তার কথাই বলা হয়েছে। তিনি জিহাদ, তাবলিগ, তাসনিফ, তাযকিয়া, তাদরিস, মুনাযারা, মুহাজারা সব ময়দানের দক্ষ ঘোড়সওয়ার। আর একারনেই তিনি বলতে পারেন ‘আল্লাহ কা বড়া শুকর হ্যায়। মুঝে রায়বেন্ড কা লেহজা ভি আতা হ্যায়। মুজে জংগ কা লেহজা ভি আতা হ্যায়।’ (আগামীপর্বে সমাপ্য)

লিখেছেন ইমরান রায়হান।

বিঃ দ্রঃ মজার মজার রেসিপি ও টিপস, রেগুলার আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ আমার লাইফস্টাইল

Check Also

korbani

কোরবানির জরুরি মাসআলা : পর্ব ৬

কোরবানির পশুর বাচ্চা হলে মাসআলা : কোরবানির পশু বাচ্চা দিলে ওই বাচ্চা জবাই না করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *